Sabujshree Prakalpa কী? কি কি সুবিধা পাবেন এবং উদ্দেশ্যই বা কি সবুজশ্রী প্রকল্প সূচনার?

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবেশ সম্পর্কে জন সচেতনতা বৃদ্ধি করতে এবং নবজাতক শিশুকে প্রতিরক্ষার তাগিদে একটি নতুন প্রকল্পের রূপায়ণ করেন যার নাম  সবুজশ্রী প্রকল্প। এই প্রকল্প মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি বহুমুখী পরিকল্পনা এবং এই প্রকল্পের হাত ধরে “সবুজ বাংলা” গড়ার মূল লক্ষ্য ছিল তাঁর ।

সবুজশ্রী প্রকল্প কী? ( What is Sabujshree Prakalpa?)

পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় 2016 সালে সবুজশ্রী প্রকল্পের স্বার্থক রূপ দান করা হয় ।  রাজ্যের প্রতিটি শিশু ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর তাদের পরিবারের হাতে একটি গাছের চারা তুলে দেওয়া হয়ে থাকে এবং গাছটির নামকরণ করা হয় নবজাতক শিশুটির নামানুসারে । ধীরে ধীরে ছোট শিশুটির সঙ্গেই বেড়ে উঠবে সেই গাছের চারাটি। শিশুর পরিবারকেও গাছের চারাটিকে নিজের শিশুর মতো করেই লালনপালন করতে হবে ও পরবর্তীকালে শিশু বড় হয়ে গাছটি তার প্রয়োজন মতো ব্যবহার করতে পারবে। প্রয়োজন পড়লে প্রাপ্তবয়স্ক হয়ে সে আর্থিক কারণেও গাছটি ব্যবহার করতে পারবে।

বর্তমান সমাজে গ্লোবাল ওয়ার্মিং অন্যতম একটি প্রধান উদ্বেগ যা পরিবেশকে ক্রমে ধ্বংসের পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে । সবুজায়নের প্রয়োজনীয়তার স্বার্থে এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মেকে সুরক্ষিত করতে পশ্চিমবঙ্গ সরকার বদ্ধপরিকর। পরিবেশবান্ধব এই প্রকল্পের মাধ্যমে  রাজ্য সরকার প্রতিটি নবজাতক শিশুর পরিবারকে একটি করে চারা গাছ উপহার দেওয়া সিধান্ত গ্রহণ করেছেন যাতে ধরিত্রি আবার সুজলা সুফলা শস্য শ্যামলা হয়ে ওঠে।

উক্ত প্রকল্পটির লক্ষ্য প্রতিটি সন্তানের আর্থিক নিরাপত্তার একটি নির্দিষ্ট পরিমান নিশ্চিত করা এবং রাজ্যে সবুজের আচ্ছাদন বাড়ানো। সবুজশ্রী প্রধানত বন, পঞ্চায়েত ও পল্লী উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের একটি সহযোগিতামূলক প্রচেষ্টা।

সবুজশ্রী প্রকল্পের উদ্দেশ্য (Objective of Sabujshree Prakalpa):-

  • সবুজায়নের পাশাপাশি শিশুর ভবিষ্যৎ নিশ্চিত করাও এই প্রকল্পের এর অন্যতম প্রধান লক্ষ্য।
  •  শিশু বয়স থেকে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে গাছ লাগানোর সুশিক্ষা প্রদান করা।
  • সন্তানের বেড়ে ওঠার সাথে সাথে শিশু এবং গাছের মধ্যে মানসিক এবং ব্যক্তিগত মেলবন্ধন তৈরী করা; তাদের মধ্যে অচ্ছেদ্য সম্পর্ক ও অনুভূতি গড়ে তোলার জন্যই এই প্রকল্প। 
  • বৃক্ষ রোপণের উদ্দেশ্যেই এই প্রকল্প শুরু করা হয়। 
  • পরিবেশ সম্পর্কে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি করা এবং বন্ধন তৈরি করা। 
  • ভবিষ্যতের চাহিদা যাতে পূরণ করা যায় , সন্তানের জন্য সেই সম্পদ তৈরি করা। 
  • গণনায় দেখা গেছে যে রাজ্যে প্রতি বছর রাজ্যে ১৫ লক্ষ সন্তানের জন্ম হয়। অতএব প্রত্যেক পরিবার যদি একটি করে চারাগাছ পায় এবং লাগায় তাহলে ১৫ লক্ষ বৃক্ষ রোপণ করা সম্ভব হবে।
  • আর এর ফলে প্রতিবছর ১৫ লক্ষাধিক চারা রোপণের মাধ্যমে রাজ্যের গ্রিন কভার বৃদ্ধি করা সম্ভব হবে। 
  • রাজ্য শিশু সচেতনতা এবং এক ই সাথে পরিবেশ সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্য নিয়ে চালু করা হয় সবুজশ্রী প্রকল্প। 
  • “সবুজ বাংলা” গড়ে তোলা এর অন্যতম উদ্দেশ্যে।
  • শিশু প্রাপ্তবয়স্ক হবার পর সরকার থেকে প্রাপ্ত গাছটি বিক্রি করে তার প্রয়োজনীয় আর্থিক অভাব মেটাতে পারবে। তাই তাদের ভবিষ্যতের আর্থিক সুরাহার কথা মাথায় রেখে এই প্রকল্প চালু করা হয়। 

সবুজশ্রী প্রকল্পের সুবিধা কী? (Benefits of Sabujshree Prakalpa):-

  • পশ্চিমবঙ্গের প্রত্যেক নবজাতক শিশু জন্মানোর পর বন দপ্তরের কাছ থেকে বিনামূল্যে একটি করে মূল্যবান গাছের চারা পাবে।
  • চারা গাছটি নবজাতক শিশুর প্রত্যেক পরিবার ই লাভ করবে।
  • প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পর শিশু তার নিজের প্রয়োজন মতো গাছটি ব্যবহার ও করতে পারবে।
  • বড় হয়ে নিজের আর্থিক প্রয়োজনে সে গাছটি বিক্রি করে আর্থিক অভাব দূর করতে সক্ষম হতে পারে।
  • সবুজশ্রী প্রকল্পটির মাধ্যমে প্রতি বছর ১৫ লাখ বৃক্ষ রোপণ করা সম্ভব হয়েছে।
  • বৃক্ষ রোপণের মাধ্যমে পরিবেশ সচেতনতা অনেক বেড়েছে।

সবুজশ্রী প্রকল্প সমন্ধিত লিঙ্কস (Sabujshree Prakalpa Important Links):-

Sabujshree Prakalpa Official Notification Download Link Click Here
Official Website  Click Here

FAQ:- 

1. Sabujshree Prakalpa Lunching Date কি?

ANS:- 27th May, 2016

2. Sabujshree Prakalpa Official Website কোনটি?

ANS:- http://westbengalforest.gov.in//sabujsri.php 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *